ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-16

, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

উত্তরার কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ আজ

প্রকাশিত: ০৭:৫৯ , ০১ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৮:০১ , ০১ আগস্ট ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় নৌমন্ত্রীর পদত্যাগ, নিরাপদ সড়ক ও ঘাতক চালকদের দ্রুত বিচার ও ফাঁসির দাবিতে রাজধানীতে সড়ক অবরোধ ও গাড়ি ভাঙচুর করেছে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থীরা। এ কারণে আজ বুধবার উত্তরার অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

দুই শিক্ষার্থী নিহতের বিচারের দাবিতে গত সোমবার থেকে উত্তরার বিভিন্ন বিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে গাড়ি ভাঙচুর, গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়াসহ দিনভর রাস্তা অবরোধ করে রাখে। এরপর এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে। শিক্ষার্থীরা রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করে। তারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত ড্রেস পরেই আন্দোলনে যুক্ত হচ্ছে। এসব কারণে আজ কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মাইস্টোন কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ আলম মঙ্গলবার রাতে বলেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা নিবেচনা করে বুধবার উত্তরার কয়েকটি কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। উত্তরায় যেসকল কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে যুক্ত হয়েছে সেসব কলেজ কর্তৃপক্ষরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

দুই শিক্ষার্থী নিহতের বিচারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে ক্লাসে ফিরিয়ে আনতে হবে। উত্তরার কয়েকটি কলেজ কর্তৃপক্ষ মিলে সভা করে কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অভিভাবকও কলেজ বন্ধ রাখার পরামর্শ দেন। তবে বৃহস্পতিবার থেকে কলেজ খোলা হবে। যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হয় তবে দীর্ঘ সময়ের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা ছাড়া আর উপায় থাকবে না।

মঙ্গলবার উত্তরার জসীম উদ্দীন রোডে এনা ও বুশরা পরিবহনের দুটি বাসে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে গেলেও বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তাদের বাধা দেয়। এদিন বিকেল সাড়ে ৩টায় উত্তরা হাউজ বিল্ডিংয়ে বিজিএমইএ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পাঁচটি বাস এবং একটি পিকআপ ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এর আগে দুপুর ১২টা থেকে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা শাপলা চত্বরে অবস্থান নেয়। প্রায় কয়েকশ শিক্ষার্থীর সড়ক অবরোধের কারণে শাপলা চত্বরে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষোভ ও স্লোগানের এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা একটি বাস ভাঙচুর করে।

কলেজ বন্ধ রাখার বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে উত্তরা হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক ইমরান আজিজ বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে তুলতে বুধবার কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বুধবার উত্তরার বেশ কয়েকটি কলেজ বন্ধ রাখা হবে। কলেজ কর্তৃপক্ষরা সভা করে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে কলেজ বন্ধ রাখার বিষয়ে কোনো তথ্য জানা নেই ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কাছে। বোর্ডের পক্ষ থেকে কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তও দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক।

উল্লেখ্য, বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় রোববার দুপুর থেকেই উত্তাল ঢাকা শহর। সোমবার ঢাকার বিভিন্ন সড়ক অবরোধের পর মঙ্গলবারও রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক নিজেদের দখলে নিয়েছেন বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। ওই ঘটনায় জাবালে নূরের তিন গাড়ির দুই চালক ও দুই হেলপারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১।

এই বিভাগের আরো খবর

সরকারি অনুষ্ঠানে উপস্থিতি: প্রধানমন্ত্রীতে অনাপত্তি, অর্থমন্ত্রীতে আপত্তি ইসির

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতি বিষয়ে অবহিত করা হলে অনাপত্তি জানিয়েছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is