ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

টাঙ্গাইল পৌরসভার বেশিরভাগ রাস্তার বেহাল দশা

প্রকাশিত: ১১:৩০ , ৩০ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ১১:৫০ , ৩০ জুলাই ২০১৮

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইল পৌর এলাকার বেশিরভাগ রাস্তারই বেহাল দশা। স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তার এমন বেহাল অবস্থা। কিন্তু সংস্কারের কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। এদিকে, পৌর এলাকার দিঘুলীয়ায় লৌহজং নদীর ওপর নির্মাণাধীন সেতুটির কাজ শেষ হয়নি তিন বছরেও। যদিও সম্পন্ন হওয়ার কথা ছিলো দেড় বছর আগেই।

টাঙ্গাইল পৌর শহরের বটতলা, আদালতপাড়া, থানাপাড়া, কলেজপাড়া ও বেবিস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন এলাকার বেশিরভাগ রাস্তারই বেহাল অবস্থা। সামান্য বৃষ্টিতেই রাস্তাঘাটে পানি উঠে যায়। ফলে চলাচলে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয় যাত্রীদের।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তাগুলো এমন অবস্থায় পড়ে আছে। মাঝেমধ্যে অস্থায়ীভাবে ইট-বালু দিয়ে সংস্কার করা হরেও, স্থায়ী কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছে না পৌর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, পৌর এলাকার দিঘুলীয়ায় লৌহজং নদীর ওপর সেতুটির নির্মাণকাজ দেড় বছরের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তিন বছরেও তা হয়নি। তিন কোটি ৭২ লাখ টাকায় নির্মিতব্য এই সেতুটির ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চয়তায় স্থানীয়রা।  

নদীটি পারাপারের জন্য অস্থায়ীভাবে তৈরি করা হয়েছে বাঁশের সাঁকো। এটিও এরইমধ্যে ভেঙে যাতায়াতের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে।

তবে সেতুটির নির্মাণকাজ শিগগিরই শেষ হবে বলে জানিয়েছেন টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন।

সেতুটির নির্মাণকাজ দ্রুত শেষ করার পাশাপাশি টাঙ্গাইল পৌরসভার ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলোরও দ্রুত সংস্কার চাইছেন পৌরসভার বাসিন্দারা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

রাজধানীতে তুমুল ঝড় ও বৃষ্টি, জলাবদ্ধতা, বজ্রপাতে সারাদেশে ৫জনের মৃত্যু

ডেস্ক প্রতিবেদন: রাজধানীতে ঝড়ের তাণ্ডব দেখল রাজধানীবাসী। বিকেলে ঝড়ো হাওয়াসহ তুমুল বৃষ্টিতে বিপাকে পড়েন ঘর থেকে বের হওয়া মানুষ। বিপুল...

সাগরে লঘুচাপের প্রভাবে আজও বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাগরে লঘুচাপের প্রভাবে আজও রাজধানীতে বৃষ্টি হচ্ছে, সেই সাথে বয়ে যাচ্ছে দমকা হাওয়া। সকাল থেকে দফায় দফায় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির...

রাজধানীতে হঠাৎ বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক: পশ্চিমা লঘুচাপের প্রভাবে রোববার- ১৭ ফেব্রুয়ারি ভোরে রাজধানীতে মুষলধারে বৃষ্টি হয়েছে। ভোর ছয়টা থেকেই আকাশ ভারী মেঘে ঢেকে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is