ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

শেয়ারবাজারে ফেসবুকের দরপতন, ১৭০০ কোটি ডলার লোকসান

প্রকাশিত: ১০:৪৫ , ২৭ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ১০:৪৬ , ২৭ জুলাই ২০১৮

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক: জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মার্ক জাকারবার্গের কাছে বিলিয়ন ডলারের আসা-যাওয়া অনেকটা নিত্যনৈমিত্তিক বিষয় হয়ে উঠেছে। শেয়ার বাজারে হঠাৎ করেই বড় ধরনের দরপতন ঘটেছে ফেসবুকের। মাত্র দুই ঘণ্টার ব্যবধানে ফেসবুকের শেয়ার মূল্য ২৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। ফলে প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকার লোকসান গুনতে হচ্ছে জাকারবার্গকে।

স¤প্রতি কোম্পানিটির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা ডেভিড ওহেনার চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ফেসবুকের আর্থিক প্রতিবেদনের ঘোষণা দেন। তিনি জানান, এ প্রান্তিকে ফেসবুক প্রত্যাশা অনুযায়ী আয় করতে পারেনি। এমন তথ্য জানানোর পর কোম্পানিটির শেয়ারদর ২৪ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়। যার বাজারমূল্য প্রায় ১৫ হাজার কোটি ডলার। আর এতে মাত্র দুই ঘণ্টায় ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা জাকারবার্গ খোয়ান প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি ডলার। ফলে শীর্ষ ধনীর তালিকা ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়র ইনডেক্সে তার অবস্থান নামে তিন থেকে পাঁচে নেমে আসে।

এর আগে গত জানুয়ারিতে একদিনে ৩৩০ কোটি ডলার হারিয়েছিলেন জাকারবার্গ। তবে তার আগে গত বছরের জুলাই মাসে মাত্র পাঁচ দিনেই সাড়ে তিনশ কোটি ডলারের সম্পদ কামিয়েছিলেন জাকারবার্গ। এবার অবশ্য সব রেকর্ড ছাড়িয়ে বিপুলসংখ্যক অর্থ হারালেন তিনি।

ফেসবুকের প্রবৃদ্ধি কমে গেছে। বিগত বছরগুলোর মধ্যে এবারই ফেসবুকের প্রবৃদ্ধি সবচেয়ে কম। আর এই খবর ছড়িয়ে পড়লেই ফেসবুকের শেয়ারের দাম পড়তে থাকে।

সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, তথ্য ফাঁস ও ভুয়া খবর কেলেঙ্কারির জেরে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি ফেসবুক। এমনকি দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর যে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছিল, তাও স্পর্শ করতে পারেনি যোগাযোগ মাধ্যমটি। গত কয়েকবছর ফেসবুকের আয়ে এমনটি হয়নি। ২০১৫ সালের পর এই প্রথম কোম্পানিটির বিশ্লেষকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি।

ফেসবুক বলছে, প্রায় ২৫০ কোটি মানুষ প্রতি মাসে সক্রিয়ভাবে তাদের অ্যাপগুলো ব্যবহার করছেন। তবে শুধু ফেসবুকে দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারী গত বছরের চেয়ে ১১ শতাংশ বেড়েছে। ওয়াল স্ট্রিট যে পূর্বাভাস দিয়েছিল, এটি তার চেয়ে কম। ইউরোপে দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারী গত প্রান্তিকের চেয়ে ২ কোটি ৮২ লাখ কমেছে।

মূলত বড় ধাক্কাটা এসেছে ফেসবুকের বিজ্ঞাপন থেকে। স্ট্রিট অ্যাকাউন্ট ও ফ্যাক্টশিট পূর্বাভাস দিয়েছিল, দ্বিতীয় প্রান্তিকে ১ হাজার ৩১৬ কোটি মার্কিন ডলার আয় করবে ফেসবুক। কিন্তু সে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কিছুটা কম আয় হয়েছে ফেসবুকের। তারা আয় করেছে ১ হাজার ৩০৪ কোটি মার্কিন ডলার।

এই বিভাগের আরো খবর

মরণব্যাধি ক্যান্সারের প্রতিষেধক টিকা আবিষ্কারের দাবি

আন্তর্জাতিক ডেক্স: মরণব্যাধি ক্যান্সারের প্রতিষেধক টিকা আবিষ্কারের দাবি করলেন কিউবার একদল বিজ্ঞানী। তারা আরও দাবি করেন, এই যুগান্তকারী...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is