ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-22

, ১১ মহাররম ১৪৪০

প্রশ্নফাঁস রোধ ও উত্তরপত্র মূল্যায়নে কড়াকড়িতে পাসের হার কমেছে

প্রকাশিত: ০৭:৪৭ , ২০ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ০৭:৪৭ , ২০ জুলাই ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে কঠোর পদক্ষেপ এবং উত্তরপত্র মূল্যায়ণে কড়াকড়ির কারণে এবার উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার কমেছে, এমনটাই মনে করেন শিক্ষাবিদরা। তারা বলছেন এবার প্রশ্ন ফাঁস রোধে সাফল্য পাওয়া গেছে, যা শিক্ষা ব্যবস্থায় ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তবে, বারবার পরীক্ষা পদ্ধতিতে পরিবর্তন না এনে, শিক্ষার্থীদের ওপর বাড়তি চাপ কমানোর তাগিদও দিলেন শিক্ষাবিদেরা।

এইচএসসিতে এবার পাসের হার ও জিপিএ ফাইভ গতবারের তুলনায় কমেছে। এবছর পাস করেছে ৬৬ দশমিক ছয় চার শতাংশ। যা গতবারের তুলনায় ২ দশমিক দুই সাত শতাংশ কম। ছয় বছর আগেও এই হার ছিলো ৭৬ দশমিক পাঁচ শুন্য শতাংশ।

শিক্ষাবিদরা মনে করছেন, পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ায় পাসের হার কমেছে। আরেকটি কারণ হলো, উত্তরপত্র মূল্যায়নে কড়াকাড়ি। এছাড়া ইংরেজিতে দূর্বলতা এপ্রশ্নফাঁস রোধ ও উত্তরপত্র মূল্যায়নে কড়াকড়ির কারণে এইচএসসিতে পাসের হার কমেছে- অভিমত শিক্ষাবিদদেরবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিষয়ে সিলেবাস বেশি হওয়াকেও পাসের হার কমার জন্য দায়ি করলেন শিক্ষাবিদরা।  

পাসের এই হার কমে আসাকে এক কথায় উদ্বেগজনক বলতে নারাজ শিক্ষাবিদরা। সার্বিক বিবেচনায় শিক্ষার মান স্থিতিশীল পর্যায়ে আসতে শুরু করেছে বলেও মনে করেন তারা। তবে বারবার পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তন করে শিক্ষার্থীদের ওপর বাড়তি চাপ তৈরী না করার

তারা বলছেন, উত্তরপত্র মূল্যায়ণে এমন কঠোরতা বজায় রাখা এবং দক্ষ ও প্রশিক্ষিত শিক্ষক বাড়ানো গেলে শিক্ষার মান আরো বাড়বে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

ডাকসু নির্বাচন: আদালত অবমাননার মামলা কার্যতালিকা থেকে বাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী ছয় মাসের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন না করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের...

ডাকসু নির্বাচন: হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে ঢাবি উপাচার্যের লিভ টু আপিল

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন আগামী ছয় মাসের মধ্যে অনুষ্ঠানে পদক্ষেপ নিতে হাইকোর্টের রায়ের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is