ঢাকা, শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-16

, ১০ জমাদিউল সানি ১৪৪০

পাবনায় হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১০:৩৬ , ১৬ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ১০:৩৬ , ১৬ জুলাই ২০১৮

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করার অপরাধে সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার বিকেলে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রুস্তম আলী আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়া আদালত প্রত্যেককে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে। জরিমানা না দিলে তাদের আরও এক বছর কারাগারে থাকতে হবে।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, সদর উপলোর নওদাপাড়া গ্রামের আকবর আলী প্রামাণিকের ছেলে আমজাদ হোসেন, একই গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের ছেলে তজির উদ্দিন, খোরশেদ প্রামাণিকের ছেলে আক্কাস আলী আকাই, নবীর উদ্দিন প্রামাণিকের ছেলে জীবন হোসেন, নূরুল ইসলামের ছেলে ইকরাম হোসেন, এরশাদ আলীর ছেলে আশকান আলী ও জামাত আলীর ছেলে জাফর আলী।

নথি থেকে জানা যায়, ২০১০ সালের ৩ অক্টোবর নওদাপাড়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনকে তার নিজ বাড়িতে কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা। পরদিন নিহতের ছেলে আব্দুল মালেক সাতজনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। ২০১১ সালের ১২ মে পুলিশ সাতজনের বিরুদ্ধেই আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আইনজীবী শাহজাহান আলী খান আর আসামিপক্ষে ছিলেন শাহাবুদ্দিন সবুজ ও আব্দুল হামিদ।

এই বিভাগের আরো খবর

নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ করে বিএনপির ৭ প্রার্থীর মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ সংসদ নির্বাচন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে বিএনপির সাত প্রার্থী মামলা করেছে। বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ধানের...

ফরিদপুরে দুদকের মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তার যাবজ্জীবন

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরে ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এক সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া, ৪ লাখ ২...

ঋণখেলাপী ও অর্থপাচারকারীদের তালিকা প্রকাশের নির্দেশ হাই কোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্যাংকিং খাতের গত ২০ বছরে ঋণ খেলাপি ও অর্থ পাচারকারীদের তালিকা করে এই বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিতে বাংলাদেশ ব্যাংককে...

বিচারাধীন শিশুর পরিচিতি প্রকাশে গণমাধ্যমকে সতর্ক করেছে হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিশু আদালতে বিচারাধীন কোনো শিশুর নাম, ঠিকানা, ছবি ও তার পরিচিতি প্রচার বা প্রকাশে দেশের সকল গণমাধ্যমকে সতর্ক থাকতে বলেছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is