ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-23

, ১২ মহাররম ১৪৪০

৯ মাসের মধ্যে ডেসটিনি গ্রুপের সব মামলা নিস্পত্তির নির্দেশ

প্রকাশিত: ০৭:০১ , ১৫ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ১০:০৬ , ১৫ জুলাই ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডেসটিনি গ্রুপের বিরুদ্ধে করা সব মামলা আগামী বছর ১৮ এপ্রিলের মধ্যে নিস্পত্তি করতে বিচারিক আদালতকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি ডক্টর কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ এই আদেশ দেন। আদেশে বলা হয়েছে, নয় মাসের মধ্যে বিচারিক আদলাতে ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমিনসহ অন্যদের বিরুদ্ধে করা মামলা নিস্পত্তি করতে হবে।

প্রায় ছয় বছর ধরে বিনা বিচারে কারাগারে আছেন ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমিন, ডেসটিনি টু থাউজেন্ড লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ হেসাইন। অর্থ আত্মসাতের অভিযাগে ২০১২ সালের ৩১ জুলাই তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক।

দীর্ঘ সময়েও মামলার বিচার শেষ না হওয়ায় হাইকোর্ট এর আগে ক্ষোভ জানিয়ে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্টের মধ্যে বিচারিক আদালতে তাদের বিরুদ্ধে করা মামলাটি নিস্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিচার শেষ করতে না পারায় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এক বছরের সময় চেয়ে আবারো সুপ্রিম কোর্টে চিঠি পাঠান। এর প্রেক্ষিতে রোববার বিষয়টি বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি ডক্টর কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে উঠলে আদালত মামলা শেষ করতে নতুন করে সময় বেধে দেন।

ডেসটিনির গ্রুপের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুই মামলায় ইতোমধ্যেই অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। কিন্তু ২১৯ জন সাক্ষীর মধ্যে এ পর্যন্তু মাত্র তিনজনের সাক্ষ্য প্রহণ করা হয়েছে। ফলে মামলাটি চূড়ান্তভাবে নিস্পত্তির জন্য আরো এক বছরের সময়ের আবেদন করা হয় বলে জানান।

নতুন করে বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে মামলার বিচার শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দুদকের আইনজীবী।

এই বিভাগের আরো খবর

সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত আদালতে যাবেন না খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : শারীরিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত আদালতে যাবেন না বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার বিকেলে, পুরোন...

কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলে হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃতুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৯৯৩ সালে কেরানীগঞ্জে বাবা-ছেলের হত্যা মামলায় পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে আসামিদের প্রত্যেককে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is