ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-20

, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

প্রকৃতির অনন্য নিদর্শন দিউ দ্বীপভূমি

প্রকাশিত: ০৮:০৯ , ০৮ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ০৮:০৯ , ০৮ জুলাই ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যের এক নিদর্শন দিউ দ্বীপভূমি। ভারতের গোয়া রাজ্যের সোমনাথ থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে আরবসাগরে দ্বীপটি অবস্থিত। এর চার দিকে সমুদ্র। ঘন নীল আকাশের নীচে ঝকঝকে রাস্তাঘাট, ঝাউ, পামের সারি সারি গাছ, নিজেদের ছায়া ফেলে ঘিরে রেখেছে। একসময় পর্তুগিজরা এখানে বসবাস করতো। তবে, এখানে আজও বেশ কিছু পর্তুগিজ পরিবার আছেন। তারা কথা বলেন গুজরাটি ভাষায়। 

রাস্তার মাঝে সারি সারি লাল আর গোলাপি ফুলের বাহার। ডান দিকের ছবির মতো সাজানো ছোট্ট দিউ এয়ারপোর্ট। দেশের নানান প্রান্তের ছোট ছোট ফ্লাইট এখানে ওঠানামা করে। ইতিহাস বলছে, ১৫৩১ সালে পর্তুগিজরা দিউ আক্রমণ করে। তার পর থেকেই সমুদ্রেঘেরা এই ভূখণ্ডকে  দুর্গ আর শহর দিয়ে ঘিরে ফেলেন। 

এখানে থাকার জন্য রয়েছে প্রচুর হোটেল-রেস্টুরেন্ট। যেখানে থাকার পাশাপাশি খাওয়ার জন্য পাবেন বিভিন্ন ধরনের সি-ফুড, পর্তুগিজ, গোয়ানিজ, চাইনিজ-সহ নানা প্রদেশের খাবার। সাগরের মাঝে জাহাজ আকৃতির বিশাল এক দুর্গ রয়েছে এখানে যার নাম দিউ ফোর্ট। ১৫৩৫-৪১ সালে আরবসাগরের ধারে ৫৬৭৩৬ বর্গমিটারের বিশাল দুর্গটি গড়ে তোলেন পর্তুগিজরা। দুর্গের গায়ে আছড়ে পড়ে অশান্ত সাগরের ঢেউ।  দিউ এ আরেকটি দেখার জায়গা সেন্ট ফ্রান্সিস চার্চ। ১৫৫৩ সালে পর্তুগিজরা এই চার্চটি নির্মাণ করেন। সাদা রঙের গির্জার কাঠের কাজ অপরূপ। পাশেই আছে মিউজিয়াম। এখানে রয়েছে অনেকগুলো বিচ। তাই তো দিউকে অনেকেই বিচের আইল্যান্ডও বলেন।  
 

এই বিভাগের আরো খবর

ঘুরে আসুন মেঘের রাজ্য নীলগিরি

ডেস্ক প্রতিবেদন: প্রকৃতির এক অনন্য দান বান্দরবানের নীলগিরি। যেখানে গেলে দেখতে পারবেন মেঘ আর পাহাড়ের মিতালী। যেখানে মেঘেরা আপন থেকে ছুঁয়ে...

দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ৫ দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ। সকাল সোয়া ৮টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is