ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

আমের প্রক্রিয়াজাতকরণ পদ্ধতি বাড়ানোর উপর জোর

প্রকাশিত: ০৯:১৯ , ০৭ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ১১:৩৩ , ০৭ জুলাই ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: আমের বাণিজ্যেও বৈচিত্র্য এসেছে। আম থেকে দেশে তৈরি হচ্ছে জুস, রকমারি আঁচার, আমসত্ত্ব, আইসক্রিমসহ নানা ধরনের বাহারি খবার। কাঁচা, পাকা সব আমই ব্যবহার করা হচ্ছে এসব খাদ্য তৈরিতে। তবে এর পরিমাণ খুব সামান্য। আমের অপচয় রোধ করতে আমের প্রক্রিয়াজাতকরণ পদ্ধতি আরো বাড়ানোর উপর জোর দিচ্ছেন কৃষি কর্মকর্তারা। দেশের আম এখন রপ্তানিও হচ্ছে বিভিন্ন দেশে।

কয়েক দশক আগেও কাঁচা আম থেকে আঁচার এবং পাকা আম শুধু মৌসুমী ফল হিসেবে খাওয়া হতো। এতে বাণিজ্য শুধু আমের বেচাকেনার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল, আমের প্রচুর অপচয়ও হতো। অথচ মৌসুম ছাড়া বছরের বাকী সময় আমের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হতো ভোক্তারা।

আমের সেই বানিজ্যে বৈচিত্র এসেছে। আম এখন শুধু মৌসুমী ফল হিসেবেই খওয়া হয় না আমের মৌসুম ছাড়াও আমের তৈরি নানা পণ্য খেতে পারে দেশের মানুষ।

বেশ কিছু বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এখন সারা বছর আম সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে। যদিও তা পরিমাণে খুব সামান্য। ইতিবাচক হলোÑ সরকারি পর্যায় থেকে বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে নেয়া হচ্ছে।

আমের বাণিজ্যে বৈচিত্র্য আসার পাশাপাশি দেশের আম এখন রপ্তানি হচ্ছে বিদেশের মাটিতে। তবে পরিমানে কম। ফলে চাহিদা থাকার পরও রপ্তানীর ক্ষেত্রে বিশ্ববাজারে শক্ত কোন অবস্থান করে নিতে পারেনি দেশের আম। উত্তম কৃষিনীতি এবং বালাইমুক্ত আম উৎপাদন না করতে পারায় দু’বছর আগে রপ্তানীর ক্ষেত্রে প্রতিবদ্ধকতা তৈরি হয়েছিল। তবে তা কাটিয়ে উঠেছে. যা রপ্তানি বৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি করেছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে গেল ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৩২৫ মেট্রিক টন আম বিভিন্ন দেশে রপ্তানী করা হয়েছে। এই রপ্তানী বড় বাজার ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিভিন্ন দেশ। দেশীয় হিমসাগর, ল্যাংড়া, আম্রপতি? এবং ফজলি আমের বিপুল জনপ্রিয়তা রয়েছে দেশগুলোতে।
সিংক:
নিজেদের এতো আমে থাকা স্বত্ত্বেও আমদানী হয় কিছু । বিশেষ করে যখন আমের মৌসুম থাকে না তখন প্রতিবেশী ভারত ও পুবের দেশ থাইল্যান্ড থেকে আম আনে ব্যবসায়ীরা।  রপ্তানির ক্ষেত্রে দেশীয় আমের পরীক্ষা নীরিক্ষা করা হলেও আমদানীর ক্ষেত্রে সেই ব্যবস্থা নেই দেশে-এমনটাই জানালেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

আমের গবেষণা, উৎপাদন এবং সংরক্ষণ সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে গেল কয়েক দশক ধরে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সঠিক আয়োজন সারা বছর দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিশ্ববাজারেও রাজত্ব্য তৈরির সুযোগ তৈরি করবে দেশের আমের জন্য- এই বিশ্বাস সংশ্লিষ্ট গবেষক ও চাষীদের।         
 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর পাল্টাতে থাকে রাজনীতির দৃশ্যপট

নিজস্ব প্রতিবেদক: আদর্শিক লড়াইয়ের জায়গায় বৈষয়িক প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি বড় হয়ে উঠতে থাকলে এক সময় ছাত্র রাজনীতি ও আন্দোলন স্বাধীন বাংলাদেশে পথ...

ছাত্রদের টার্গেট করে হত্যা নির্যাতন চালায় পাকিস্তানীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা অঞ্চল কেন্দ্রিক ছাত্র রাজনীতি ও আন্দোলন স্বাধীনতার কেন্দ্রীয় সংগ্রামকে সরাসরি শক্তিশালী করেছে। একাত্তরের...

স্বাধীনতার সশস্ত্র সংগ্রামের নেতৃত্ব ছিল ছাত্র সমাজের হাতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও আলোচনায় ছাত্র রাজনীতি। কারণ, কিছুদিন পরই দেশের দ্বিতীয় সংসদ খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু...

ছাত্রসংসদ চালু হলে এখানে বন্ধ হবে হানাহানির রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্রিটিশ বিরোধী অন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ ও সর্বশেষ স্বৈরাচার বিরোধী অন্দোলনে সিলেট বিভাগের ছাত্রনেতারা কাঁধে...

সিলেটের ছাত্র রাজনীতিতেও ঢুকে পড়েছে সুবিধা আদায়ের কৌশল

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে পাকিস্তান প্রতিষ্ঠা, তৎপরবর্তীতে পাকিস্তান বিরোধী আন্দোলনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের জন্ম এবং...

ডাকসু নির্বাচন আশা জাগিয়েছে সিলেটের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডাকসু নির্বাচনের পুনরুজ্জীবন চাঞ্চল্য ও আশা জাগিয়েছে সিলেট অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে। সেখানের অকেজো...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is