ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫

2018-11-14

, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

ঘরের ভেতর রাখুন সতেজ

প্রকাশিত: ০১:৫৮ , ০৫ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ০১:৫৮ , ০৫ জুলাই ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: এক টুকরো সবুজ রাখতে পারেন ঘরের কোণে। মানিপ্ল্যান্ট কিংবা ঘরে ভালো থাকে এমন যেকোনো গাছ রেখে দিতে পারেন ঘরের ভেতরে। মাটিতে কিংবা পানিতে ভালো থাকে ইনডোর প্ল্যান্ট। জেনে নিন ঘরে থাকা গাছের যতœ নেবেন কীভাবে।   
 
মাটিতে বেড়ে ওঠা গাছে অতিরিক্ত পানি দেবেন না। যেহেতু ঘরের ভেতরে রোদ থাকে না, সেহেতু গাছের গোড়ায় পানি জমিয়ে রাখাটা গাছের জন্য ভাল নয়। এতে পচে যেতে গাছের শিকড়। লম্বা একটি কাঠি টবের মাটিতে ভরে নিন। কাঠির গায়ে যদি ভেজা মাটি লেগে থাকে, তাহলে বুঝবেন গাছে পানি দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

একদম বদ্ধ ও ভ্যাপসা ঘরে গাছ রাখবেন না। এতে গাছে ফাঙ্গাস আক্রমণ করতে পারে। যে ঘরে আলো-বাতাস চলাচল করে, সেখানেই রাখুন গাছ। যে ঘরে এসি চলে বা ঘরের তাপমাত্রা ঘন ঘন পরিবর্তন হয়, সেখানে গাছ না রাখাই ভালো।

টবে যেন ঝরা ফুল, শুকনো পাতা জমে না থাকে। গাছের পাতায় ঘরের ধুলা-ময়লা জমলে শুকনা সুতির কাপড় বা স্পাঞ্জ দিয়ে হালকা করে মুছে নিন। গাছের পাতা ছোট হলে স্প্রে বোতলে পানি ভরে স্প্রে করে পাতা পরিষ্কার করুন।

গাছে কুঁড়ি আসলে টব এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় নিয়ে যাবেন না। এতে কুঁড়ি ঝরে যায়।
একসঙ্গে অনেক গাছ পরিষ্কার করতে চাইলে শাওয়ারের তলায় গাছগুলো রাখুন। তবে পরিষ্কার করার আগে গাছের গোড়ার অংশ ও তার চারদিক প্লাস্টিক দিয়ে মুড়ে দেবেন। নইলে গাছের মাটি ধুয়ে নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

পানিতে বড় হওয়া গাছের পানি নির্দিষ্ট সময় পর পর বদলে দেবেন।

গাছে পোকামাকড়ের অত্যাচার কমাতে পানিতে অ্যাসপিরিন জাতীয় ট্যাবলেট গুঁড়া করে মিশিয়ে নিন। বোতলে ভরে গাছের পাতায় মাঝে মাঝে স্প্রে করুন।

এই বিভাগের আরো খবর

হঠাৎ অদৃশ্য হয় যে প্রাণী

ডেস্ক প্রতিবেদন: সমুদ্রে কিছু প্রাণী অদৃশ্য হতে পারে। বিষয়টি নানা প্রশ্ন জাগায়। আসলে কি এমন প্রাণী আছে? হ্যাঁ, কিছু প্রাণী রয়েছে যারা নিজের...

মাছও রাস্তা পার হয়!

ডেস্ক প্রতিবেদন : রাস্তার মাঝখানে বেশ খানিকটা জায়গা ফাঁকা। দুই পাশেই যানবাহনের ছোট সারি। হঠাৎ দেখায় মনে হদে পারে ট্রাফিক সিগনালে আটকে আছে...

কাজের ফাঁকে বিরতি নিন

ডেস্ক প্রতিবেদন: বিশ্বব্যাপী হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুর হার বাড়ছে। হৃদরোগের ঝুঁকিতে আছে বহু মানুষ। সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা প্রতিবেদন বলছে,...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is