হ্যামলেটের রসে তৃপ্ত হলেন হলভর্তি দর্শক আপডেট: ০৯:৫৭, ১৭ এপ্রিল ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিল্পকলা একাডেমির নিজস্ব প্রযোজনা সৈয়দ শামসুল হক অনুদিত শেক্সপিয়রের নাটক হ্যামলেট এর উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হলো রোববার সন্ধ্যায়। আতাউর রহমানের নির্দেশনায় নাটকটির প্রযোজনা উপদেষ্টা ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। মঞ্চায়নের উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। প্রযোজনাটি উপভোগ করেন হলভর্তি দর্শক। ‘হ্যামলেট’ এর মতো বিশ্বখ্যাত নাটকের রস আস্বাদনের সুযোগ পেয়ে তৃপ্ত তারা।

উইলিয়াম শেক্সপিয়র স্মরণে শিল্পকলা একাডেমির বছরব্যাপী অনুষ্ঠানমালার অন্যতম আয়োজন, মঞ্চনাটক ‘হ্যামলেট’। এর বাংলা অনুবাদ করেছিলেন প্রয়াত সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক। একাডেমির নিজস্ব প্রযোজনা হিসেবে আতাউর রহমানের নির্দেশনায় মঞ্চস্থ হলো ‘হ্যামলেট’।

বিয়োগান্তক এই নাটকের মূল-চরিত্র হ্যামলেটের মন, দোদুল্যমানতায় মুখর। পারিবারিক ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রের শিকার হ্যামলেটের বাবা মা এবং সে নিজে আর অন্য দিকে প্রেয়সি ও তার পরিবার। আর এই চক্রান্তের নেপথ্যে তারই নিজ চাচা।

ক্ষমতার লোভে ক্লডিয়াস এই জঘন্য কাজে শুধু মাত্র বড় ভাইকে বিষ দিয়ে হত্যা করে। এর পর  হ্যামলেটের মাকে করেন হাতের পুতুল। ক্রমশ চলে ষড়যন্ত্র এবং তার নির্মম বাস্তবায়ন। এভাবেই ক্রমশ পট পরিবর্তনের প্রবাহে এগিয়ে চলে নাটক, চূড়ান্ত পরিণতির দিকে।
কিন্তু নিয়তির কাছে এক সময় হেরে যায় সে নিজেও।

এটি ছিলো এই প্রযোজনার উদ্বোধনী মঞ্চায়ন। উদ্বোধন পর্বে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও দেশের বিশিষ্ট নাট্যজনেরা।

নির্দেশক আতাউর রহমান জানালেন, এদেশের দর্শকদের কথা চিন্তা করে দেশীয় আবহেই তিনি নাটকটি উপস্থাপনার প্রয়াস চালিয়েছেন।

মানবতার জয়যাত্রা তুলে ধরা হয়েছে নাটকটিতে তাই এমন নাটকে অভিনয় করে গর্বিত অভিনেতারা।

 

Publisher : .