ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-17

, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

সফটওয়্যার খাতে রয়েছে দক্ষ জনশক্তি আর অবকাঠামো সুবিধার অভাব

প্রকাশিত: ১০:২৯ , ০৬ মে ২০১৮ আপডেট: ১০:২০ , ০৬ মে ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে বিদেশে প্রতি বছরই সফটওয়্যারের বাজার সম্প্রসারণ হচ্ছে ত্রিশ থেকে চল্লি¬শ শতাংশ। ফলে প্রচুর সম্ভাবনা এ খাতে থাকলেও সমন্বিত পরিকল্পিত উদ্যোগ খুব বেশি নেই। তরুণ মেধাবী জনগোষ্ঠীকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষকের অভাবকেও দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে গত কয়েক বছরে বেশ কিছু পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে যার সুপরিকল্পিত বাস্তবায়ন বিশ্বের নামকরা প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলো জায়গা করে নিতে সক্ষম হবে মনে করছেন খাত সংশি¬ষ্টরা।

তথ্য প্রযুক্তির কারণে এখন পর্যন্ত  মাত্র পাঁচ শতাংশ পরিবর্তন দৈনন্দিন জীবনে জায়গা করে নিলেও বাকি পঁচানব্বই শতাংশ পরিবর্তন ঘটবে আগামী কয়েক দশকেই। যখন শুধু শহরাঞ্চলেই নয় প্রত্যঞ্চ অঞ্চলের মানুষের জীবন যাত্রাও নিয়ন্ত্রণ করবে প্রযুক্তি নির্ভর পণ্যগুলো। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে দেশে প্রচুর মেধাবী জনগোষ্ঠী থাকলেও শিক্ষা ব্যবস্থা যুগোপযোগি নয়, আছে প্রশিক্ষকের অভাবও।

বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে মাত্র দশটি প্রতিষ্ঠান দেশে বিদেশে তাদের সেবা প্রদান করলেও তা যথেষ্ট নয় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। খাত সম্প্রসারণে দেশের সরকারী-বেসরকারীসহ অভ্যন্তরীণ বাজারের সব কাজ দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর দখলে জরুরী বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

দেশে হাজার কোটি টাকার হার্ডওয়্যারের পণ্যের বাজার থাকলেও তা বিদেশী প্রতিষ্ঠানের ওপর নির্ভরশীল। অতি সম্প্রতি দেশীয় কোম্পানী ওয়ালটন ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, মাউসসহ বেশ কিছু পণ্যে উৎপাদনে গেছে। বছরে প্রায় চৌদ্দ লক্ষ ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ উৎপাদন করছে প্রতিষ্ঠানটি যার একটা অংশ রপ্তানীও হচ্ছে।

সরকার দেশের নানা প্রান্তে গড়ে তুলবে আটাশটি হাইটেক ও সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। এছাড়া বেসরকারী পর্যায়েও বারটি সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক গড়ে তুলতে বিশেষ সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

পোষ্টার ব্যানারে ছেয়ে গেছে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা বিভাগীয় নির্বাচনী আসন গুলোতে, হোক তা শহরে কিংবা প্রত্যন্ত অঞ্চলে, পোষ্টার ব্যানারে ছেয়ে গেছে এরই মধ্যে। কর্মব্যস্ত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is