ঢাকা, শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-22

, ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪০

বিদ্যালয়ের অভাবে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত ভৈরবের মঞ্জুরনগরের শিশুরা

প্রকাশিত: ০৮:৩৭ , ০৪ মে ২০১৮ আপডেট: ১২:২৩ , ০৪ মে ২০১৮

ভৈরব প্রতিনিধি : গ্রামে কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না থাকায় ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়নের মঞ্জুরনগর গ্রামের শত শত শিশু শিক্ষার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এখানকার শিশুদের ২ কিলোমিটার হাওরের পথ পাড়ি দিয়ে যেতে হয় পার্শ্ববর্তী গ্রামের স্কুলে। ফলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গন্ডি না পেরোতেই অনেক শিক্ষার্থীই ঝরে পড়ে। এ নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে গ্রামবাসীর। তাই গ্রামে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি তাদের।

মেঘনার তীর ঘেঁষা ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়নের মঞ্জুরনগর গ্রাম। এখানে প্রায় ৩শ’ পরিবারের বাস। এই গ্রামে কোনো প্রাথমিক বিদ্যালয় না থাকায় ২ কিলোমিটার দূরে মুটুপি ও খলাপাড়া গ্রামে যেতে হয় গ্রামের কোমলমতি শিশুদের।

এখানকার পরিবারের শিশুরা হাওড়ের দুর্গম পথ পাড়ি দিয়ে পার্শ্ববর্তী গ্রামের বিদ্যালয়ে গেলেও বিপত্তি বাধে গ্রীষ্মকালের প্রচন্ড রোদ আর বর্ষায়। এ সময় হাওড় এলাকার পথঘাট শিশুদের চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। ফলে এই গ্রামের বেশিরভাগ শিশুই বঞ্চিত হয় পড়ালেখা শেখার সুযোগ থেকে।

চলতি বছরের শুরুতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি গ্রামের কিছু ছেলে মেয়েদের পাঠদানের উদ্যোগ নিলেও তা প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি।

তবে জেলা শিক্ষা বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে গ্রামবাসী জায়গা নির্ধারণ করে আবেদন করলে বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় সব রকম সহযোগিতা করা হবে।

হাওড়বেষ্টিত এই এলাকার প্রত্যন্ত গ্রামের শিশুদের শিক্ষার সুযোগ করে দিতে দ্রুত একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি এখানকার মানুষের।

 

এই বিভাগের আরো খবর

গ্যাসের অভাবে রাজধানীতে দুর্ভোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পূর্ব ঘোষণা ছাড়া সকাল থেকে হঠাৎ করেই গ্যাস নেই সাভার থেকে রাজধানীর আজিমপুর পর্যন্ত এলাকায়। এক নোটিশে তিতাস কর্তৃপক্ষ...

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল আংশিক সচল, অগ্নিকাণ্ড একটি সতর্ক সংকেত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : অগ্নিকান্ডের প্রেক্ষিতে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা সাময়িক বন্ধ থাকার পর আবারো চালু হয়েছে।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is