ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-18

, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

খুলে দেয়া হলো দ্বিতীয় ধরলা সেতু

প্রকাশিত: ০৭:১৫ , ২৮ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ০৭:১৫ , ২৮ এপ্রিল ২০১৮

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: অবশেষে যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হলো লালমনিরহাটের ধরলা নদীর ওপর নির্মিত বহুল প্রতীক্ষিত দ্বিতীয় ধরলা সেতু।

শনিবার বিকেল সাড়ে  তিনটার দিকে সদর উপজেলার কুলাঘাট এলাকায় লালমনিরহাট ও কুড়িগাম জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের উপস্থিতে সেতুটি খুলে দেয়া হয়।

এলজিইডির অধীনে বাস্তবায়িত ১৯টি স্প্যান বিশিষ্ট ৯৫০ মিটার পিসি গার্ডারের এই সেতুর কাজ শেষ হয় গত বছর ডিসেম্বরে।

সরকারের উচ্চপর্যায়ের নির্দেশনা অনুযায়ী জনদুর্ভোগ লাঘবে সেতুটি যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হলো বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী জাকিউর রহমান।

এলাকাবাসী বলছেন, এই সেতুর ফলে কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট জেলার জনগণ, বিশেষ করে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী, নাগেশ্বরী ও ভুরুঙ্গামারী উপজেলার মানুষ অনেক বেশি উপকৃত হবেন।

এছাড়া, বঙ্গ সোনাহাট স্থলবন্দর হয়ে ফুলবাড়ীর দ্বিতীয় ধরলা সেতু দিয়ে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় সেভেন সিস্টারস (আসাম, মেঘালয়, মিজোরাম, মনিপুর, নাগাল্যান্ড, ত্রিপুরা ও অরুণাচল) রাজ্যগুলোর সাথে পণ্য পরিবহনের ব্যয়ও কমবে।

সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ, কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ও মো. জাফর আলী, জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক ও মো. মেহেদুল করিমসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এলজিইডি সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত জনগুরুত্বপূর্ণ একটি প্রকল্প দ্বিতীয় ধরলা সেতু। নদীশাসন, অ্যাপ্রোচ রোড নির্মাণ ও মূল সেতু নির্মাণের জন্য প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছিল ১৯১ কোটি ৬৩ লাখ ২২৩ টাকা ৫৮ পয়সা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

পরিবহন ধর্মঘটে ভোগান্তি চরমে

নিজস্ব প্রতিবেদক : সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারসহ ৮ দফা দাবিতে সকাল ৬টা থেকে সারাদেশে চলছে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is