ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-21

, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

উড়োজাহাজ ও যন্ত্রাংশ আমদানি করতে দিতে হচ্ছে শুল্ক

প্রকাশিত: ১১:২৪ , ২৭ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ১০:৫৫ , ২৭ এপ্রিল ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: শুল্কমুক্ত ঘোষণার পরেও যাত্রী পরিবহনের জন্য উড়োজাহাজসহ এর যন্ত্রাংশ আমদানি করতে শুল্ক দিতে হচ্ছে। সেইসাথে নানান দাপ্তরিক দীর্ঘসূত্রতায় বিলম্বিত হচ্ছে আমদানি প্রক্রিয়া। আসছে বাজেটে এসব বিষয়ে সরকারের সহযোগিতা চান বেসরকারি এয়ারলাইন্স ব্যবসায়ীরা। একইসাথে উড়োজাহাজ উড্ডয়ন অবতরণে বিভিন্ন ধরনের চার্জ ও ট্যাক্স কমানোর দাবি তাদের।

দেশের বেসরকারি আকাশ পরিবহনের চাহিদা ও সম্ভাবনা দিন দিন বাড়ছে। বর্তমানে এই খাতে বিনিয়োগের পরিমান ৩ হাজার কোটি টাকারও বেশি। বাণিজ্যিক চাহিদাকে গুরুত্ব দিয়ে এ খাতে সেবার মান ও আস্থা বাড়াতে সরকারের সহযোগিতা চান উদ্যোক্তারা।

বেসরকারি খাতে উড়োজাহাজ ও এর বিভিন্ন যন্ত্রাংশ আমদানিতে কাস্টমস ট্যারিফ মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ এ খাতের ব্যবসায়ীদের। তারা বলছেন- এভিয়েশনের জন্য আমদানির যন্ত্রাংশ সাধারণ ক্যাটাগরিতে ফেলে একদিকে যেমন শুল্ক আরোপ হচ্ছে, তেমনি বিলম্বিত হচ্ছে আমদানি প্রক্রিয়া।

আসন্ন বাজেটে বেসরকারি উড়োজাহাজ পরিবহনে সব ধরনের চার্জ ও ট্যাক্স কমাতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে অপারেটররা।

উড়োজাহাজের তেল কিনতে বেসরকারি এয়ারলাইন্সগুলোকে বাড়তি টাকা গুনতে হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের। আবার একই উড়োজাহাজের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনায় যে খরচ পড়ছে, আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে তারচেয়ে অনেক বেশি টাকা খরচ করতে হচ্ছে।

এসব বিষয় নিয়ে এবারই প্রথম এনবিআরের সাথে বৈঠক করেছে এয়ারলাইন্স অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। অর্থমন্ত্রীর সাথেও আলোচনায় বসবেন বলে জানান অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।  

 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is