ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-19

, ৮ মহাররম ১৪৪০

বাজারে দাম কম 

আলু নিয়ে বিপাকে বগুড়ার হিমাগার মালিকরা

প্রকাশিত: ১১:১৭ , ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৪:৫০ , ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭

বগুড়া প্রতিনিধি: বাজারে দাম কমে যাওয়ায় মজুদ করা আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছে বগুড়ার হিমাগার মালিকরা। দীর্ঘসময় ধরে মজুদ থাকায় নতুন মৌসুমে হিমাগারে আলু তুলতে পারছে না তারা। এই অবস্থায় বড় আকারের লোকসানের শংকায় রয়েছে হিমাগার মালিকরা। কৃষকদের অধিক মুনাফার লোভ আর আলু রপ্তানি না হওয়াকেই পরিস্থিতির জন্য দূষছেন তারা। 

গেলো মৌসুমে বগুড়ায় ৬৭ হাজার ১৭৫ হেক্টর জমিতে আলু উৎপাদন হয়েছে ১৩ লাখ ১০ হাজার ২শ’ মেট্রিকটন। এরমধ্যে প্রায় ৪৫ হাজার মেট্রিকটন আলু এখনও জেলার হিমাগারগুলোতে মজুদ রয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছে হিমাগারগুলোর মালিকরা।

কৃষকরা বলছে, প্রতি বস্তা আলু হিমাগারে রাখাসহ খরচ হয়েছে ১৫শ’ টাকা পর্যন্ত। অথচ বস্তা প্রতি এখন আলুর বাজার দর ৫শ’ থেকে ৭শ’ টাকা। এই অবস্থায় লোকসানের আশংকায় আলু নিচ্ছে না কৃষক ও ব্যবসায়ীরা।

আলু রপ্তানি না হওয়া আর কৃষকদের অধিক মুনাফার লোভকেই সংখটের কারণ হিসেবে দুষছে হিমাগারের মালিকরা। পাশাপাশি নতুন মৌসুমে আলু রাখা সম্ভব হচ্ছেনা বলেও জানালেন তারা।

তবে কৃষি বিভাগ বলছে, সরকারি ত্রাণ কার্যক্রমে চালের পাশাপাশি আলুর ব্যবহার করা গেলে এসব আলুর সদ্ব্যবহার করা সম্ভব। জানালেন, বগুড়া কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের জেলা বাজার কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম।

অধিক সময় ধরে আলু সংরক্ষণ করায় লোকসানের মুখে পড়ছে হিমাগার মালিকরা। অবস্থা থেকে উত্তরণে দ্রুত পুরোনো আলু তুলে নিতে কৃষক ও ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তারা।

এই বিভাগের আরো খবর

গ্যাস বেলুনে হিলিয়ামের পরিবর্তে ব্যবহার হচ্ছে হাইড্রোজেন গ্যাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিপজ্জনক ও বিস্ফোরক হাইড্রোজেন গ্যাস দিয়ে বেলুন ফুলিয়ে উড়ানো হচ্ছে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে। নানা উৎসবে শিশুদের হাতে হাতে...

তিনমাসের মধ্যেই কাজ শুরু

ঢাকার নদী-খাল দূষণমুক্ত ও নাব্যতা বৃদ্ধির উদ্যোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবার ঢাকার আশপাশের নদী ও খাল দূষণমুক্ত ও নাব্যতা বৃদ্ধির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এজন্য প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকার একটি...

পরিবেশ বান্ধব করার তাগিদ

কাগজ শিল্পে আসছে নতুন নতুন প্রকল্প 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিক্রির পরিমাণ হিসেবে দেশে প্রতিদিনের কাগজের বাজার প্রায় চার হাজার মেট্রিক টনের। টাকার অংকে যার পরিমাণ প্রায় আটাশ কোটি...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is