ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-18

, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

অপরূপ কাশ্মীর

প্রকাশিত: ০২:১৬ , ২৩ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০২:১৬ , ২৩ অক্টোবর ২০১৭

ডেস্ক প্রতিবেদন: সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে প্রায় সাত হাজার ফুট ওপরে সবুজ উপত্যকা আর শান্ত হ্রদে  ঘেরা কাশ্মীর। সবকিছুই দেখতে যেন ছবির মতো। কোটি কোটি বুনো ফুলে ঢাকা উপত্যকায় ছুটে  বেড়ানো ঘোড়ার দল, পাইন, ফার, বার্চগাছের সারি, নীল আকাশে মাথা গুঁজে থাকা পর্বতজুড়ে মেঘেদের খেলা। সেখান থেকে নেমে আসা দুরন্ত ঝরণার নাচ, পর্বতমালার ভেতর দিয়ে এঁকেবেঁকে চলা রাস্তা, কখনো মাটি থেকে হাজার হাজার ফুট ওপরে, কখনো বা ঢাল বেয়ে সটান নিচে, কখনো ঘুটঘুটে অন্ধকার সুড়ঙ্গের ভেতরে, আবার কখনো রাস্তার ধারালো বাঁকে গভীর গিরিখাদের নিচে উন্মত্ত পাহাড়ি নদী। মনে হবে সবই যেন স্বপ্ন।

যা দেখবেন

জম্মু

৩০৫ মিটার (৯৯০ ফিট) উচ্চতায় তাওয়াই নদীর তীরে জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের শীতকালীন রাজধানী শহর। একে মন্দিরের শহরও বলা হয়ে থাকে। পর্যটকদের কাশ্মীর উপত্যকায় পৌঁছানোর তোরণদ্বার। সমতল আর কাশ্মীর উপত্যকার মাঝে জম্মু তাওয়াই এই পথের শেষ  রেলস্টেশন। জম্মুর অন্যতম আকর্ষণ রঘুনাজীর মন্দির এর অবস্থান এই শহরের কেন্দ্রে। আরো দেখতে পাবেন জয়পুর পাথরের তৈরি রাম, লক্ষণ, সীতাসহ অনেকের মুর্তি। অমর সিং প্যালেস মিউজিয়ামে অনেক ঐতিহাসিক ছবি এবং তার ব্যক্তিগত বই সংগ্রহ দেখে মুগ্ধ হবেন।

শ্রীনগর

পরদিন সকালে বেরিয়ে পরতে পারেন সারা দিন সময় হাতে নিয়ে। প্রথমেই ঘুরে নিতে পারেন ডাল লেক। রাজকীয় ডিঙি নৌকা, যাকে স্থানীয় ভাষায় বলে ‘শিকারা’, তাতে চড়ে চক্কর দিতে পারেন ডাল লেকের অলিগলি, দেখে নিতে পারেন নেহরু পার্ক, ভাসমান পোস্ট অফিস, চাঁদনি চক আর বাজার, যেখানে রকমারি পসরা সাজিয়ে বসেছে স্থানীয় অধিবাসীরা। শ্রীনগরে দেখার মতো আরও আছে ইন্দিরা গান্ধী টিউলিপ গার্ডেন, চশমা শাহি, নিশাত গার্ডেন আর শালিমারবাগের মতো বড় বাগান, যেখানে শান বাঁধানো পাহাড়ি ঝরণা থেকে পড়ছে অবিরাম জলধারা আর বাগান রাঙিয়ে আছে হাজারো ফুলের গাছ। এখানে আরও আছে পরিমহল, মানসবাল লেক, নাগিন লেক, ঐতিহাসিক চারার-ই-শরিফ ও হজরতবাল মসজিদ, বোটানিক্যাল গার্ডেন, ঝিলম নদী এবং শ্রী প্রতাপ সিং মিউজিয়াম।

গুলমার্গ

একদিন সময় নিয়ে বেরিয়ে পরতে পারেন গুলমার্গের উদ্দেশে। বাসে দুই ঘণ্টার যাত্রা রিজার্ভ জিপেও যেতে পারেন। বরফাচ্ছাদিত পর্বতে কেবল কারে চড়ে দেখে নিতে পারেন পাকিস্তানের আজাদ কাশ্মীর সীমান্ত। ঘোড়ায় চড়ে বেরিয়ে আসতে পারেন চেরি অরচার্ড, পাইন ফরেস্ট কিংবা মিশন কাশ্মীর সিনেমার শুটিং স্পট। এছাড়া এখানে রয়েছে আরও অনেক রকম বিনোদনের ব্যবস্থা।

প্যাহেলগাম

শ্রীনগর থেকে ১০০ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে নদী-উপত্যকাশোভিত প্যাহেলগাম, নয়নাবিরাম সৌন্দর্যের লীলাভুমি হচ্ছে এই প্যাহেলগাম। চোখ বুঝতে মন চাইবে না এর সৌন্দর্যে। এখানে রয়েছে দেখার মতো অনেকগুলো স্পট। রিজার্ভ গাড়ি নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন বেতাব ভ্যালি, চন্দনবাড়ী, আরু ভ্যালিসহ আরো অনেক স্পট। এছাড়াও ঘোরা নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন মিনি সুইজারল্যান্ড ও সুটিং স্পট।

সোনমার্গ

সিন্ধু উপত্যকায় সৌন্দর্যের লীলাভূমি সোনমার্গ। কাশ্মীরে বেড়ানোর সবচেয়ে সুন্দর জায়গার নাম সোনমার্গ। সোনমার্গ উজ্জ্বল ফুল এবং ঘন সবুজ পাহাড় দিয়ে পূর্ণ। সোনমার্গ এর নামের মানে ‘সোনার তৃণভূমি’ এবং যা যজি লা পাসের কাছাকাছি। তৃণময় শান্তিপূর্ণ এবং আদিম সৌন্দর্য দেখে এবং লম্বা গাছের মাধ্যমে ট্রেকিং শুধু সোনমার্গ পর্যটকদের জন্য জনপ্রিয় কার্যক্রম সমূহের মধ্যে একটি।

লাদাখ

প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক পর্যটক বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে লাদাখে আসেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে। কিন্তু লাদাখে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বাইরেও প্রকৃতির যে রহস্যময়তা আছে তা অনেক বেশি আকর্ষণীয় মানুষের জন্য। লাদাখের লেহ অঞ্চল থেকে কারগিলের দিকে যেতে ত্রিশ কিলোমিটার দূরত্বেই আছে সে রহস্যময় চুম্বক পাহাড়। শ্রীনগর-লেহ মূলসড়ক দিয়ে খুব সহজেই ওই পাহাড়টি দেখা যায় এবং সড়কটিও ওই পাহাড়ের ওপর দিয়েই গেছে।

কাটরা

২০-৩০ রুপিতে ২ ঘণ্টায় জম্মু থেকে ৪৮ কিলোমিটার বাস জার্নি করে কাটরা পৌঁছতে হবে। সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত কিছুক্ষণ পরপর বাস যায়। ট্যাক্সি জিপ করেও যেতে পারেন- তবে পাহাড়ী পথবলে খরচ বেশি পড়বে। ১৪ কিলোমিটার হাটাপথে পৌঁছতে হয় উত্তর ভারতের প্রসিদ্ধ বজ্ঞোদেবীর তীর্থ মন্দিরে।

কৈলাস কুন্ড

কৈলাশকুণ্ডের অন্য নাম কপলাশ লেক। ভাদরোয়া শহর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার দূরে ৪৪০০ মিটার (১৪৩০০ ফিট) উচ্চতায় স্বচ্ছ নীল জলের সরোবর কৈলাশ কুণ্ড। এখানে আরো আছে-মহেশ্বর বিষ্ণু, মহাদেব ত্রিশুল ও বাসুকী নাগের মুর্তি এবং মন্দির।

কীভাবে যাবেন?

চাইলে পুরোটা পথই পাড়ি দিতে পারেন আকাশপথে। কলকাতা থেকে শ্রীনগর রুটে প্রতিদিন চলাচল করে কিংফিশার এয়ারলাইনসের বিমান। এ ছাড়া আছে ইনডিগো এবং স্পাইসজেট। ঢাকা থেকেও রয়েছে দিল্লি হয়ে শ্রীনগরগামী জেট এয়ারলাইনসের ফ্লাইট। ট্রেনেও যেতে পারেন। 


 

এই বিভাগের আরো খবর

ঘুরে আসুন মেঘের রাজ্য নীলগিরি

ডেস্ক প্রতিবেদন: প্রকৃতির এক অনন্য দান বান্দরবানের নীলগিরি। যেখানে গেলে দেখতে পারবেন মেঘ আর পাহাড়ের মিতালী। যেখানে মেঘেরা আপন থেকে ছুঁয়ে...

দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ৫ দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ। সকাল সোয়া ৮টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is